বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ০৯:৫৬ অপরাহ্ন

গাইবান্ধায় বৃদ্ধের গলা কাটা লাশ উদ্ধার

  • প্রকাশিত : শনিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২৩
গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে সুরত আলী প্রামাণিক নামে (৬২) এক বৃদ্ধকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহতের বাড়ি সাদুল্লাপুর উপজেলার কামারপড়া ইউনিয়নের পুরান লক্ষীপুর গ্রামে। তিনি ওই

Abdullah Al Masud

ডেস্ক রিপোর্টার 

আব্দুল্লাহ আল মাসুদ

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে সুরত আলী প্রামাণিক নামে (৬২) এক বৃদ্ধকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহতের বাড়ি সাদুল্লাপুর উপজেলার কামারপড়া ইউনিয়নের পুরান লক্ষীপুর গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের মৃত খয়বর প্রামাণিকের ছেলে।

আজ শনিবার সকাল আনুমানিক ১০টার দিকে সাদুল্লাপুর সরকারী ডিগ্রী কলেজ সংলগ্ন ঘাঘট নদীর বাঁধের নিচ থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে সাদুল্লাপুর থানা পুলিশ। এ সময় হত্যায় ব্যবহৃত একটি ধারালো ছুরি উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, আজ সকালে বাঁধের পাশের জমিতে রক্তাক্ত অবস্থায় গলাকাটা একটি মরদেহ দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত ব্যক্তির গলা ও পেটে ধারালো অস্ত্রের আঘাত ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, রাতের আধারে দুর্বৃত্তরা তাকে হত্যা করে মরদেহ ফেলে পালিয়ে গেছে।

স্থানীয়রা জানায়, শুক্রবার বিকেলে বাড়ি থেকে বাজার করতে সাদুল্লাপুর বন্দরে গিয়ে আর বাড়ি ফেরেননি তিনি। রাতে অনেক খোঁজাখুজি করেও তার সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরদিন সকালে রক্তাক্ত মরদেহ পড়ে থাকার খবর পেয়ে তাকে শনাক্ত করে স্বজনরা।

নিহত সুরত আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম ও শফিকুল ইসলামের জানান, পূর্ব বিরোধের জেরে তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিও জানান তারা।

এ বিষয়ে সাদুল্লাপুর থানার ওসি (তদন্ত) এনায়েত কবির জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে। হত্যার রহস্য উন্মোচনসহ জড়িতদের শনাক্ত এবং গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সম্পর্কিত সংবাদ
© ২০২৪ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রংপুর নিউজ ৩৬৫
ডিজাইন ও কারিগরী সহায়তায় আতিক