বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ০৮:২১ অপরাহ্ন

ইসলাম ধর্ম নিয়ে কটুক্তি করায় বেরোবির শিক্ষার্থী আটক

  • প্রকাশিত : শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২
ইসলাম ধর্ম নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য করায় বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) বাংলা বিভাগের এক শিক্ষার্থীকে আটক করেছে রংপুর মেট্রোপলিটন তাজহাট থানা পুলিশ। আটক সুজন পাল বাংলা বিভাগের ১৩ ব্যাচের (১ম বর্ষ) শিক্ষার্থী এবং ঠাকুরগাঁওয়ের বীরগঞ্জ উপজেলার চমৎকার পালের ছেলে।

রিপোর্টার

আল-আমিন সাদিক সায়েম

ইসলাম ধর্ম নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য করায় বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) বাংলা বিভাগের এক শিক্ষার্থীকে আটক করেছে রংপুর মেট্রোপলিটন তাজহাট থানা পুলিশ। আটক সুজন পাল বাংলা বিভাগের ১৩ ব্যাচের (১ম বর্ষ) শিক্ষার্থী এবং দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার চমৎকার পালের ছেলে।

আজ শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে ওই শিক্ষার্থীকে তার নিজ বাড়ি বীরগঞ্জ থেকে আটক করা হয়েছে বলে জানান তাজহাট থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাজমুল কাদির। তিনি বলেন, ‘ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করার অভিযোগে উত্তেজনা তৈরি হয়। পরে তাকে (সুজন পাল) আটক করা হয়েছে। এখনো তার বিরুদ্ধে কোনো মামলা হয়নি।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়েল প্রক্টর গোলাম রব্বানী বলেন, ‘ধর্ম বিষয়টি স্পর্শকাতর। ওই শিক্ষার্থী ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য করেছেন। বিষয়টি নিয়ে গতকাল শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে উত্তেজনা তৈরি হলে তাকে আটক করা হয়। যে পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, তাতে তাকে সেফ করার জন্য আটক করা হয়েছে। আটক না করলে আজ হয়তো বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিন্ন পরিস্থিতি তৈরি হতো।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের চেয়ারম্যান ড. তুহিন ওয়াদুদ বলেন, ‘শুনেছি সে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্য এক ছাত্রীর একটি বিশ্লেষণমূলক সমালোচনায় ধর্ম নিয়ে সরাসরি কটাক্ষ করেছে। এ কারণে তাকে আটক করা হয়েছে। আমরা খোঁজখবর রাখছি।’

জানা যায়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের ১৩তম ব্যাচের (১ম বর্ষ) শিক্ষার্থী সেজুতি মুমু, ইসলাম ধর্ম ও সনাতন ধর্ম নিয়ে সহনশীলতামূলক একটি পোস্ট করেন তার ফেসবুক ওয়ালে। তার পোস্টে ইসলাম ধর্মকে কটাক্ক করে আপত্তিকর মন্তব্য করেন একই ব্যাচের শিক্ষার্থী সুজন পাল।

সুজন পাল তার মন্তব্যে লেখেন, ‘আরে ইসলাম যে কতটা জঙ্গীবাদী তা তাদের ধর্মই বলে দেয়। আর এ জন্যই ইসলাম ধর্ম থেকে যতসব জঙ্গী সৃষ্টি হয়। কারণ তাদের ধর্ম তা ওই জঙ্গী মনোভাবই তাদের করে তোলে। আর এজন্য দেখ কতই অত্যাচারিত হচ্ছে মুসলিমরা। একটা বিষয় দেখিস হিন্দুদের সাথে খ্রিস্টান, বৌদ্ধ কারোই কোনো সমস্যা নেই বা এদের তেমন দ্বন্দ্ব বাজেনা। কিন্তু সনাতন ধর্মের সাথেও ইসলামের সম্পর্ক খারাপ, বৌদ্ধ ধর্মের সাথেও আর খ্রিস্টান ধর্মের সাথেও। আর তাই আজকে ইসরাইল, চীন, মায়ানমার, ভারত, নিউজিল্যান্ড, শ্রীলঙ্কাসহ সব দেশে মুসলিমরা নিপীরিত। কারণ কোনো ধর্মই তাদের দেখতে পারেনা। কারণ যত অনৈতিক কাজ সব তাদের কাছে নৈতিক। ৩ টা বিয়ে করা নৈতিক, ১২টা বাচ্চা নেয়া নৈতিক। শালার যতসব মূর্খ্য বাস করে ইসলাম ধর্মে। আর তাই দেখ সালারা বিশ্বের ভালো ভালো জায়গায় অবস্থান করতে পারেনা। এরা মনে করে যে জনসংখ্যা বাড়ালেই বুঝি ওদের সাথে কে আর পারে? আর তাই ছোট্ট একটা দেশ ইসরাইলের সাথে পেরে উঠছেনা। কি আর বলবো। এত মূর্খ্য এই বেটারা সব জানে, জেনেও না জানার ভান করে। জানে যে ইসলাম একটা নতুন ধর্ম, তবুও মানেনা। কারণ তাদের রক্ত গরম। কিন্তু কাজের সময় সালারা পারেনা। ওই গরমে সার।’

সুজন পালের কমেন্ট এর স্কিনশট বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ওই শিক্ষার্থীর বিচার দাবিতে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় ওঠে। পরে আজ ভোর রাতে তাকে আটক করে তাজহাট থানা পুলিশ।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

সম্পর্কিত সংবাদ
© ২০২৪ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | রংপুর নিউজ ৩৬৫
ডিজাইন ও কারিগরী সহায়তায় আতিক